Walton Primo GH7i

আপনি কি কম বাজেটের মধ্যে ফুল-ভিউ ডিস্প্লেয়ের একটি স্মার্টফোন খুঁজছেন? তাহলে আপনার জন্যেই বাংলাদেশের ১ নাম্বার মোবাইলফোন ও স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন নিয়ে আসলো এমন একটি স্মার্টফোন যা আপনাকে সাধ্যের মধ্যে বেস্ট পারফরমেন্স দিতে সক্ষম হবে। হ্যাঁ  বন্ধুরা, আমরা যারা মোটামুটি বাজেটের মধ্যে ফুল-ভিউ ডিসপ্লেযুক্ত একটি প্রিমিয়াম ফোন নিতে চাচ্ছি Walton Primo GH7i ডিভাইজটি তাদের পছন্দ হবার মতোই। এই ফোনটির বাংলাদেশের বাজারে মূল্য ধরা হয়েছে ৫৭৯৯টাকা।

তবে এই দামের মধ্যে Walton Primo GH7i ফোনটিতে এমন সব ফিচার্স পাবেন যা অবাক করার মতোই। তবে চলুন আর দেরি না করে দেখে নিই বিশেষ কি কি থাকছে এই স্মার্টফোনটিতে।

Walton Primo GH7i  ফোনটির প্রসেসর,অপারেটিং সিস্টেম,RAM এবং ROM

কম বাজেটের ফোন হলেও সেই তুলনায় ওয়ালটন এই স্মার্টফোনটিতে সফটওয়্যার এর দিক দিয়ে কোনো অংশে কমতি রাখে নি। প্রসেসর হিসেবে ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে Quad-core 1.3GHz সম্মৃদ্ধ একটি প্রসেসর। যা এই রেঞ্জের ফোনের ক্ষেত্রে খুব উল্লেখযোগ্য একটি বিষয়। অপারেটিং সিস্টেমের দিক দিয়েও পিছিয়ে নেই স্মার্টফোনটি। কারণ এতে দেয়া রয়েছে Android Oreo v8.1 (Go Edition)।

এই রেঞ্জের ফোন হিসেবে এতে RAM এবং ROM হিসেবে দেয়া আছে ১জিবি এবং ৮জিবি। যা উল্লেখ করার মতো না হলেও বেশ ভালোই বলা চলে।সেক্ষেত্রে  আমি এইফোনটিকে সফটওয়্যার আপডেটেড এর দিক দিয়ে এই রেঞ্জের মধ্যে বেস্ট একটি ডিভাইজ বলবো।

ক্যামেরা এবং ডিসপ্লে সেকশন

যারা সাধ্যের মধ্যে ভালো একটি ক্যামেরা ফোন চাচ্ছেন তারা নিতে পারেন ফোনটি। কারণ ফোনটির ক্যামেরার দিকটি  এর প্রাইস এর তুলনায় অনেকটাই ভালো। কারণ এই স্মার্টফোনটিতে ব্যাক ক্যামেরা হিসেবে দেয়া হয়েছে ৮ মেগাপিক্সসেলের একটি ক্যামেরা। এবং ফ্রন্ট ক্যামেরা হিসেবে দেয়া হয়েছে ৫ মেগাপিক্সসেলের একটি সেলফি ক্যামেরা। এই ফোনটির সব চেয়ে উল্লেখযোগ্য দিকটি হলো এর ডিসপ্লে সেকশনটি।

ওয়ালটন তাদের মিনিমাম রেঞ্জের এই ফোনটিতে দিয়েছে ৫.৪৫ ইনচেসের ফুল-ভিউ ডিসপ্লে। IPS Touchscreen যুক্ত এই ডিসপ্লেটি হতে পারে পছন্দের একটি।

বডি,ওয়েইট এবং ব্যাটারী সেকশন

বডি এবং ওয়েইট বিবেচনায় এই ফোনটি একটি দারুন ডিভাইজ হতে পারে আপনার জন্য। 148.8 * 71 .8 *8.95 মিলিমিটার সাইজের এই স্মার্টফোনটির ওজন 176 grams। যা একটি প্রিমিয়াম সাইজের স্মার্টফোন বলা যায়। ব্যাটারির দিক দিয়েও ফোনটি বেশ ভালো। কারণ এতে ব্যবহার করা হয়েছে Lithium-ion 2500maH এর একটি মিডেল রেঞ্জের ব্যাটারী।

গ্রাফিক্স,মেমরি স্লট এবং সিমকার্ড টাইপ

গ্রাফিক্স সেকশনটি বেশ ভালো দেয়া হয়েছে ফোনটিতে। গ্রাফিক্স হিসেবে দিয়ে হয়েছে Mail 400 । যা গ্রাফিক্স পারফরম্যান্সের দিক দিয়ে ফোনটিকে রূপান্তর করেছে দারুন একটি ডিভাইজে। এবার আসা যাক এক্সটার্নাল মেমরি কার্ড স্লট ইস্যুতে। স্মার্টফোনটিতে এক্সটার্নাল মেমরি হিসেবে ব্যবহার করার জন্য একটি মেমরি স্লট দেয়া আছে। যেখানে ৬৪জিবি পর্যন্ত এক্সটার্নাল মেমরি ব্যবহার করা যাবে।

আজকাল সব স্মার্টফোনেই দুইটি সিম ব্যবহার করার সুবিধাটি থাকে। এক্ষেত্রে এই ডিভাইজটিতেও ২টি মাইক্রো সিম ব্যবহার করা যাবে। উভয়সিম স্লটই ৩জি এনাবল থাকবে।

বিশেষ ফিচার্স এবং অন্যান্য ফিচার্সসমূহ

সব স্মার্টফোনে কমবেশি বিশেষ ফিচার্স থেকে থাকে। এদিক দিয়ে এই স্মার্টফোনটিও কোনো অংশে আলাদা নয়। এই স্মার্টফোনটিতে স্মার্ট এবং বিশেষ ফিচার্স হিসেবে দেয়া আছে স্পিড বুস্টার,স্মার্ট গেস্টোর এবং স্মার্ট অ্যাকশন। অন্যান্য ফিচার্স বলতে ফোনটিতে থাকছে ব্লুটুথ,জিপিএস,এজিপিএস,MP3 ,MP4 সহ রেডিও,জিপিআরএস,Edge এর সাথে সাথে Multitouch এর সুবিধাটিও।

তাহলে বন্ধুরা আমরা জানলাম ওয়ালটনের কম বাজেটের ফুল-ভিউ ডিসপ্লেযুক্ত এই স্মার্টফোনটি সম্পর্কে টুকিটাকি নানান বিষয়গুলো। সব দিকদিয়ে বিবেচনা করলে দেখা যায় এই স্মার্টফোনটি এই রেঞ্জের অন্য সকল স্মার্টফোনগুলো থেকে অনেকটাই আপডেটেড। যারা কম বাজেট নিয়ে ফুল-ভিউ ডিস্প্লেয়ের মজা পেতে চান তারা নিতেই পারেন এই ডিভাইজটি। তাহলে বন্ধুরা এইতো ছিল Walton Primo GH7i ফোনটি সম্পর্কে আমার আজকের লিখাটি। পরবর্তীতে হাজির হবো নতুন কোনো টপিকস নিয়ে। সবার সুস্বাস্থ্য কামনা করছি। আল্লাহ হাফেজ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here