Sim Cloning

আমরা সবাই বিভিন্ন অপারেটরের সিম কার্ড ব্যবহার করে থাকি । অনেক সময় দেখা যায় আপনি যে সিমটি ব্যবহার করছেন হুবহু সেই সিম নাম্বারটি অন্য কোনো হ্যান্ডসেটে ব্যবহার করা হচ্ছে। কি আশ্চৰ্য লাগছে? আশ্চর্য হওয়াটাই স্বাভাবিক। যদি দেখেন আপনার ব্যবহার করা সিমটি আপনার পাশাপাশি অন্য কোনো হ্যান্ডসেটে অন্য কোনো ব্যাক্তি দ্বারা ব্যবহার করা হচ্ছে তবে বুঝে নিবেন আপনার সিমটি  Sim Cloning এর শিকার।

হ্যাঁ বন্ধুরা, এটা অবশ্যই একটি ভীতিকর বিষয়। তবে এটা নিয়ে অতটা ভয় পাবার কোনো কারণ নেই। কিছু সতর্কতা মেনে চললেই এই ধরণের ক্লোননিং থেকে সুরক্ষা দিতে পারবেন আপনার প্রিয় এবং জরুরি সিমটিকে।

তবে চলুন আর দেরি না করে দেখে নেই সিম ক্লোননিং বিষয়টি আসলে কি এবং কিভাবে আমরা আমাদের মহামূল্যবান সিমটিকে এই ধরণের বিপদ থেকে সুরক্ষা দিতে পারি।

Sim Cloning কি?

আপনি যে সিমটি ব্যবহার করছেন সেই সিমটি যদি আপনার পাশাপাশি অন্য কোনো ব্যাক্তি দ্বারা অন্য কোনো হ্যান্ডসেটে ব্যবহার করা হয় তবে বুঝবেন আপনার সিমটি ক্লোন করা হয়েছে। দুষ্কৃতিকারীরা আপনার সিমটি ক্লোন করে আপনার সিমটি দিয়ে আইনবিরোধী কাজ করার জন্য এই ধরণের Sim Cloning করে থাকে।

কিভাবে আপনার সিমটি ক্লোননিং এর শিকার হতে পারে?

আপনি যদি দেখেন কোনো অপরিচিত নাম্বার থেকে আপনাকে মিসড কল দেয়া হয়েছে এবং আপনি যদি সেই নাম্বারটিতে পরবর্তীতে কল ব্যাক করেন তবে আপনি অনাকাঙ্খিতভাবে সিম ক্লোননিং এর শিকার হয়ে যেতে পারেন। একটি বিশেষ সফ্টওয়্যারের মাধ্যমে দুষ্কৃতিকারীরা কল ব্যাক করার সাথে সাথেই আপনার সিমটি ক্লোন করে নিতেই পারে।

সিম ক্লোননিং হলে আপনার সিমে রাখা যাবতীয় ডাটা ক্লোন নাম্বারে চলে যাবে।যার দরুন আপনার প্রাইভেসি বেশ ভালো ভাবেই ক্ষুন্ন হতে পারে।

কিভাবে সুরক্ষিত রাখবেন আপনার প্রিয় সিমটিকে ক্লোনিংয়ের কবল থেকে ?

পৃথিবীর অনেক দেশেই সিম ক্লোনিংয়ের অনেক খবরই পাওয়া যায় বিশ্ব মিডিয়াতে। কিন্তু বাংলাদেশে ৬টি অপারেটরের রেকর্ড অনুযায়ী এখনো পর্যন্ত সিম ক্লোনিং হয়েছে এমন কোনো তথ্য নেই। সে যাই হোক, সাবধানতার কোনো অবকাশ নেই এই বিষয়টিতে। যদি মনে হয় আপনার সিমটি থেকে কথা না বললেও কল রেট অনুযায়ী টাকা আপনার সিমটি থেকে কেটে নেয়া হচ্ছে তবে বুঝবেন আপনার সিমটি হয়তো ক্লোনিংয়ের শিকার।

এই ধরণের কিছু ঘটলেই সরাসরি সংশিষ্ট সিম অপারেটরের কাস্টমার কেয়ার নাম্বারে ফোন দিয়ে আপনার সেই অনাকাঙ্খিত খরচের বিষয়টি জানতে চাইবেন।

কিভাবে নিশ্চিত হবেন আপনার সিমটি ক্লোন করা হয়েছে কিনা?

যদি কোনো কারণে মনে হয় আপনার সিমটি ক্লোনিংয়ের শিকার হয়েছে তাহলে আপনি নিজেই খুব সহজে বিষয়টি নিশ্চিত হতে পারেন যে আসলেই ক্লোনিংয়ের শিকার কিনা আপনার মহামূল্যবান সিমটি। সেই জন্য আপনার সিমটি বন্ধ রাখুন এবং অন্য কোনো নাম্বার দিয়ে কল দিন আপনার সিমটিতে। যদি রিং হয় তবে বুঝে নিন আপনার সিমটি ক্লোনিংয়ের শিকার। আর যদি রিং না হয় তবে বুঝবেন আপনার সিমটি সুরক্ষিত রয়েছে।

মূলত Sim Cloning বর্তমান বিশ্বে সকল মোবাইলফোন এবং সিমকার্ড গ্রাহকদের জন্য একধনের হুমকিস্বরূপ বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সাধারণত দুষ্কৃতিকারী বা বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠন সিম ক্লোন করে তাদের অপরাধমূলক কার্যক্রমে সেই ক্লোন করা নাম্বারগুলো ব্যবহার করে থাকে। তাই কোনো অপরিচিত নাম্বার থেকে মিসড কল আসলে নাম্বারটি আসলে কার সেটি নিশ্চিত না করে কল ব্যাক করা থেকে বিরত থাকুন।

আর হ্যাঁ ,শুধু অপরিচিত নাম্বার থেকে মিসড কল এর ক্ষেত্রে সতর্ক হন। কিন্তু ডাইরেক্ট কল আসলে রিসিভ করুন নির্ভয়ে।তবে আজ এই পর্যন্তই। সবাই সতর্ক থাকুন ,ভালো থাকুন। আল্লাহ হাফেজ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here