2018 er best smartphone device

স্মার্টফোন নিয়ে আমাদের সবার কৌতূহল থাকে।আপনি বা আমি কেওই এর ব্যাতিক্রম নই। একজন সৌখিন মানুষ হিসেবে সবাই চাই বাজারের টপ ব্র্যান্ডের লেটেস্ট ফোনটা যেন থাকে হাতে। দেখতে দেখতে আমরা চলে এলাম 2018 তে। হাজারো ব্র্যান্ডের রয়েছে অনেক অনেক ফোন।

প্রতিযোগিতায় মোবাইল কোম্পানিগুলো কেও কাও ছেড়ে কথা বলছে না। লেটেস্ট ভার্শনের ফোন দিয়ে টপে থাকার চেষ্টা করছে সবাই। একজন মোবাইল লাভার হিসেবে আমি সব সময় মোবাইলের বিষয়ে আপডেটেড থাকতে ভালোবাসি।আসলে নিজে জানাটাই তো যথেষ্ট নয়। নিজে যা জানি সেটি শেয়ার করার মাঝেই মজাটা। তো আমি আজ আলোচনা করতে এসেছি চলতি বছরে টপ ৫ এ থাকা ফোনগুলো নিয়ে। হ্যাঁ বন্ধুরা,আমার আজকের আলোচনাটা এই টপিকটা ঘিরেই। আপনারা যারা জানতে চান আশা করছি পুরোটা সময় আপনাদের পাবো।চলুন তবে নজর বুলিয়ে নিই টপ ৫ এ।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ৯+ 2018

2018 এর নতুন চমক হিসেবে এবার স্যামসাং নিয়ে এলো স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ৯+ স্মার্টফোনটি। স্যামসাং কোম্পানীয়ের গ্যালাক্সি এস ৯+ নিয়ে কি আর বলার আছে। এই ফোনটি এইপর্যন্ত ১ নম্বরে রয়েছে আমার লিস্টে। এটির স্পেসিফিকেশন্স এবং ফিচারস এ ৮০% মিল পাবেন এস ৯ এর সাথে। বড় ডিসপ্লে এই ফোনটির একটি বিশেষ দিক। থাকছে বড় ব্যাটারীও।

ক্যামেরার দিক দিয়ে এই ফোনটিকে এগিয়ে রাখা যায় এর পোর্ট্রেইট মুডের জন্য। এছাড়াও ফোনটিতে থাকছে এন্ড্রোয়েড ৮ওরিও OS। আর চমক হিসেবে থাকছে রিয়ার ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। থাকছে ৬ জিবি RAM সুবিধাও।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস ৯

দ্বিতীয় পসিশনে স্যামসাংয়ের এস ৯ ফোনটি রাখলে খুব একটা ভুল হবে না। কারণ ডিসপ্লে,ক্যামেরার দিক দিয়ে এটি সবার উপরে। আর প্রসেসরেও যেকোনো ফোনকে টেক্কা দিতে সক্ষম। ডিসপ্লেতে এস ৮ এর মতো ইনফিনিটি ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ক্যামেরাটি লো লাইট ফটোগ্রাফির জন্য পারফেক্ট করে সেট করা হয়েছে। ব্যাটারী দেয়া হয়েছে ৩০০০ Mah এর একটি ব্যাটারী। ডুয়াল ফোরজি সিমের সুবিধা পাবেন ফোনটিতে। ৪ জিবি RAM এর এই ফোনটিতে থাকছে এক্সট্রা হেডফোন জ্যাক।

হুয়াওয়েই পি২০ প্রো

আইফোন ফ্যানদের মনে কষ্ট দিয়ে তার জায়গাটি পাবে পি২০ প্রো ফোনটি। সদ্য রিলিজ হওয়া এই ফোনটিতে ব্যাবহারকারীরা পাচ্ছেন বেজেলেস নচ। থাকছে একটি নয় দুইটি নয় তিন তিনটি ক্যামেরা। ৬ জিবি RAM এর এই ফোনটিতে থাকছে ৪০০০ maH এর একটি পাওয়ারফুল ব্যাটারী। এন্ড্রোয়েড ওরিও ৮.১ ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটিতে। স্টাইলিস্ট ডিজাইনের ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে পাওয়ারফুল স্ন্যাপড্রাগন ৮৪৫ এর একটি প্রসেসর।

আইফোন টেন

যে ফোনটি তার নচ এর জন্য বিখ্যাত সেটি হলো আইফোন টেন। খুব সুন্দরভাবে সেট করা হয়েছে নচ ডিসপ্লে আইফোনটিতে। ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর নেই তবে আছে ফেস রেকগন্যাশন ফিচার। এ১১ বায়োনিক এসওসি নিয়ে ফোনটি গতিতেও সেরা। সামনের ক্যামেরা হিসেবে আছে ৭ মেগাপিক্সসেলের একটি ক্যামেরা। রিয়ার ক্যামেরা হিসেবে আছে ১২ মেগাপিক্সসেলের দুইটি ক্যামেরা।

আইফোন ৮+

৫ নম্বরে রয়েছে আইফোন ৮+ ফোনটি। আপনি যদি গ্লাস বডির প্রিমিয়াম লুকের ফোন চান তবে এটি নিতে পারেন। এটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ক্রিস্পি রেটিনা ডিসপ্লে। প্রসেসরে এ১১ ব্যবহার করা হয়েছে ফোনটিতে। রাখা হয়েছে প্রোট্ট্রেটের সুবিধার জন্য ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরাও।৩ জিবি RAM এর ফোনটির কাঠামোটি পুরোটাই এলুমিনিয়ামের।

ওহ হ্যাঁ, রেটিনা ডিপ্লেটি থাকছে ৫’৫ ইঞ্চি যা বেশ বড়োই।

তো বন্ধুরা আমরা জানলাম 2018 এর টপ ৫ মোবাইলফোন সম্পর্কে। টেকনোলজির সাথে আপ টু  ডেট হতে আপনার হাতে থাকা চাই টপ ব্র্যান্ডের একটি হ্যান্ডসেট। আইফোনে,স্যামসাং,এলজি,এরিকসন,হুয়াওয়েই সবগুলোই নামিদামি ব্র্যান্ড। যারা বহুবছর হলো টপ পসিশনে আছে। আশা করি আমি আমার কথা রাখতে পেরেছি। জানাতে পেরেছি ২০১৮ এর  টপ ৫ স্মার্টফোনের খুঁটিনাটি বিষয়গুলো। তো সবার সুস্বাস্থ্য কামনা করে আজ এখানে বিদায় নিচ্ছি। ফিরে আসবো নতুন কিছু নিয়ে আবার কোনো একসময়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here